ঢাকা: সময়মতো এসএমএস না পাওয়ায় দেশের সমুদ্রগামী পেশায় কর্মরত মেরিনারদের টিকা পেতে দেরি হচ্ছে। ফলে অনেকের পক্ষে সম্ভব হচ্ছে না চাকরিতে যোগ দেওয়া।

এভাবে বিদেশে চাকরির বাজার হারাতে চলেছেন বাংলাদেশি মেরিনাররা।
শনিবার (০৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির নসরুল হামিদ মিলনায়তনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ মার্চেন্ট মেরিন অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএমওএ) এ কথা জানায়।

এদিন করোনা টিকা পেতে দ্রুত এসএমএস দেওয়াসহ ৮ দফা দাবি জানিয়েছে সংগঠনটি। একইসঙ্গে বিদ্যমান সমস্যার দ্রুত সমাধানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, সময়মতো এসএমএস না পাওয়ায় মেরিনারদের করোনা টিকা পেতে অনেক দেরি হয়ে যাচ্ছে। ফলে অনেকে চাকরিতে যোগ দিতে পারছেন না। মেরিনারদের চাকরিতে যোগ দেওয়ার সময় টিকার পূর্ণ ডোজ নেওয়ার সনদ দেখাতে হচ্ছে। যার কারণে বাংলাদেশি মেরিনাররা বিদেশে চাকরির বাজার হারাচ্ছেন। দেশ হারাচ্ছে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা।

অন্যদিকে, জাহাজ থেকে দেশে ফেরার সময় করোনা টেস্টের সার্টিফিকেট দেখানোর নিয়ম রয়েছে। এ কারণে জাহাজে কর্মরত বাংলাদেশি মেরিনারদের সাইন অফ প্রক্রিয়া নিয়ে সৃষ্টি হয়েছে জটিলতা। দ্রুত সংশ্লিষ্ট দপ্তর থেকে বিষয়টি সমাধানের উদ্যোগ নিতে হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও বলা হয়, সিঙ্গাপুর মেরিটাইম অথরিটির সার্কুলার অনুসারে দেশটিতে কোনো মেরিনারকে সাইন অফ করতে হলে পূর্ববর্তী পোর্টে পিসিআর টেস্ট করতে হয়। কিন্তু অনেক সময় পূর্ববর্তী পোর্টে পিসিআর টেস্ট করা সম্ভব হয় না বা এটি জটিল হয়ে পড়ে। আবার সিঙ্গাপুর এসে সাইন অফ করে দেশে আসার জন্য নিয়ম অনুযায়ী পুনরায় পিসিআর টেস্ট করতে হয়। ফলে সামগ্রিক প্রক্রিয়া জটিল হয়ে পড়েছে।

বাংলাদেশি মেরিনারদের অনেকে সিঙ্গাপুর থেকে সাইন অফ করেন। কিন্তু জটিল প্রক্রিয়ার কারণে বিশ্বের জাহাজ কোম্পানিগুলো বাংলাদেশি মেরিনার নিয়োগের প্রতি অনাগ্রহী হয়ে পড়ছে। বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে সিঙ্গাপুর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনার মাধ্যমে সাইন অফ প্রক্রিয়া সহজ করতে উদ্যোগ নিতে বলা হয়েছে।

এছাড়াও সমুদ্রগামী জাহাজে কর্মরত বাংলাদেশি মেরিনারদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ই-পাসপোর্ট দেওয়া, নবায়ন এবং বিদেশি বন্দরে মেয়াদোত্তীর্ণ পাসপোর্টের বিপরীতে ইলেক্ট্রনিক ট্রাভেল পাস ইস্যু; প্রস্তাবিত ‘বাংলাদেশ বাণিজ্যিক নৌপরিবহন আইন-২০২১’ এর ধারা ও প্রবিধান সংশোধন; সমুদ্রগামী জাহাজের মেরিনারদের ওয়েজ আরনার্স ডেভেলপমেন্ট বন্ড জয়ের অনুমতির পুনঃব্যবস্থা করা; চীনের জেনছু মেরিটাইম ইনস্টিটিউটে পঞ্চম সেমিস্টারে অধ্যয়নরত ছাত্রদের সিডিসি দেওয়া এবং সার্টিফিকেট অফ এফিসিয়েন্সি (সিওপি) সংক্রান্ত সমস্যার সমাধানের দাবি জানায় বিএমএমওএ।

সংবাদ সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের প্রেসিডেন্ট ক্যাপ্টেন মো. আনাম চৌধুরী। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের ভাইস প্রেসিডেন্ট ক্যাপ্টেন গোলাম মহিউদ্দীন কাদরী ও মেরিন ইঞ্জিনিয়ার মো. মাহবুবুর রহমান, ট্রেজারার চিফ অফিসার মো. আলী হোসেন, এক্সিকিউটিভ কমিটি মেম্বার কাজী মো. আবু সায়ীদ, অফিস এক্সিকিউটিভ অঙ্গন দাস প্রমুখ।

সূত্রঃ BANGLANEWS24.COM

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *